বিভিন্ন গ্যাসের নাম ও তার কার্য / ব্যবহার / বৈশিষ্ট্য । WBCS প্রস্তুতি

The True Study -তে আপনাদের স্বাগত । যারা প্রতিনিয়ত আমার ওয়েবসাইটটি ফলো করছেন তাদের ধন্যবাদ ।

এই পোস্টিতে আমি ফিজিক্যাল সাইন্স এর গ্যাস চ্যাপ্টার নিয়ে আলোচনা করলাম । বিভিন্ন পরীক্ষায় বিভিন্ন গ্যাসের নাম ও তাদের ব্যবহার ও বৈশিষ্ঠ্য থাকে প্রশ্ন জানতে চাওয়া হয় । এই পোস্টটিতে ইনফরমেশন ক্রমশ যুক্ত করবো । তাই সপ্তাহে অন্তত ১ বার এই পোস্টিটি ফলো করলে আপনারা বিজ্ঞানের এই অংশটি থাকে আশাকরি Common পাবেন ।

বিভিন্ন গ্যাসের নাম ও তার কার্য / ব্যবহার / বৈশিষ্ট্য
বিভিন্ন গ্যাসের নাম কার্য / ব্যবহার / বৈশিষ্ট্য
অক্সিজেন পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে ২১%
নাইট্রোজেন বায়ুমণ্ডলে এই গ্যাসের পরিমান ৭৮% । এই গ্যাসের প্রভাবে
পৃথিবীর আবহাওয়া পরিবর্তিত হয় ।
মিথেন মার্স গ্যাস নাম পরিচিত । জলাভূমিতে আলেয়া সৃষ্টি করে ।
আর্গন এটি একটি নিষ্ক্রিয় গ্যাস । ইলেকট্রিক বাল্বে ব্যবহৃত হয় ।
সালফার ডাইঅক্সাইড বায়ুতে এই গ্যাসের উপস্থিতি অ্যাসিড বৃষ্টি করে । শিল্পাঞ্চলে
এই বৃষ্টি দেখা যায় ।
ক্লোরোফ্লুরো কার্বন CFC, এই গ্যাস ওজোন স্তরের ক্ষতির জন্য দায়ী, এটি
একপ্রকার গ্রিনহাউস গ্যাস
বিউটেন, প্রোপেন ও ইথেন এই গ্যাসগুলি LPG -তে ব্যবহৃত হয় ।
অ্যামোনিয়া (NH3) টিয়ার গ্যাস বলে । এই গ্যাসের প্রবাহে প্রচন্ড ধোয়া হয়
ও চোখ জেলা করে ।
হাইড্রোজেন সালফাইড (H2S) ফুয়েল গন্ধ যুক্ত, অনেকটা পচা ডিমের মতো ।
নাইট্রাস অক্সাইড (N2O) এটি লাফিং গ্যাস
ফ্রেওন রেফ্রিজারেটারে এই গ্যাস ব্যবহৃত হয়
ডাইফ্লুরো ডাইক্লোরো মিথেন এটি হল ফ্রেওন । রেফ্রিজারেটারে কেমিক্যাল হিসাবে এই
গ্যাস ব্যবহৃত হয়
মিথেন, CO2 এবং হাইড্রোজেন এই গ্যাসের মিশ্রনে গোবর গ্যাস তৈরী হয় ।
হিলিয়াম হিলিয়াম হলো সবচাইতে হালকা গ্যাস । গ্যাস বেলুনে এই গ্যাস
ব্যবহার কর হয় । এছাড়া অক্সিজেনের সাথে হিলিয়াম মিশ্রিত
গ্যাস রোগীর শ্বাসপ্রশ্বাস নিয়ন্ত্রণে ব্যবহৃত হয় ।
কার্বন মনোক্সাইড (CO) এক প্রকার গ্রিনহাউস গ্যাস । এরজন্য সর্বাধিক বায়ু দূষণ
হয় । এছাড়া যানবাহনের দূষিণ নিয়ন্ত্রণ পরীক্ষায় ব্যবহার হয় ।
অ্যাসেটিলিন গ্যাস ওয়েল্ডিং এবং কৃতিম ভাবে ফল পাকাতে ব্যবহৃত হয় ।
মার্কারি ভ্যাপার ফ্লুরোসেন্ট বাল্বে এই গ্যাস ব্যবহৃত হয়
ইথাইল মার্ক্যাপট্যান এই গ্যাস ইথানেথিওল নাম ও পরিচিত । LPG গ্যাসে গন্ধ যুক্ত
করার জন্য এই গ্যাস ব্যবহৃত হয় ।
সালফার ডাই অক্সাইড থার্মাল পাওয়ার স্টেশনের নিকবর্তী অঞ্চলে এই গ্যাসের প্রাধান্য
দেখা যায় । এই গ্যাসের প্রভাবে ওই সমস্ত অঞ্চলে দূষণ দেখা যায় ।
নাইট্রোজেন অক্সাইড এই গ্যাসের রং হালকা বাদামি এবং যানবহুল অঞ্চলে এই গ্যাস
বেশি থাকে ।